সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশনে (SEO) হাতেখড়ি – পর্ব – ৪

Print Friendly

এসইও শুরু করতে গেলে আপনাদের আগে এর কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সম্পর্কে জানতে হবে। আজকের পর্বে আমরা তুলে ধরব  তেমনি গুরুত্বপূর্ণ কিছু তথ্য যেটা এসইওতে অধিক পরিমানে কাজে লাগে। তো  চলুন জেনে নেই সে বিষয়গুলো  সম্পর্কে:-

Domain Name:

এসইওতে প্রথমে যে জিনিসটি রয়েছে সেটি হল ডোমেইন নেম। এটি এসইওতে সবচেয়ে বেশি  Important Factor.  তো ডোমেইন নেম হল আপনার ডোমেইনের নাম। যেমন আমরা ফেসবুক ব্যবহার করি। ফেসবুক ব্যবহার করার সময়  আমরা www.Facebook.com  লিখে সার্চ দেই। এই যে আমরা Facebook.com  লিখি এটিই হল ফেসবুকের ডোমেইন নেম। আবার google.com হল  গুগলের ডোমেইন নেম। অর্থাৎ কোন ওয়েবসাইটের মেইন নামটিই হল ডোমেইন নেম। আপনি যে ওয়েবসাইটটি তৈরি করবেন সেই ডোমেইন নামটাই আপনার ওয়েবসাইটটির মেইন পরিচয় বহন করবে। যেমন – আমরা যদি গুগলে গিয়ে Best bike লিখে সার্চ দেই তখন এরকম একটি পেজ চলে আসবে-

Best Bike

এখানে  কিছু ওয়েবসাইট দেখা যাচ্ছে যেখানে প্রতিটি ওয়েবসাইটের ডোমেইন নাম দেয়া আছে। এই ওয়েবসাইটগুলো ফার্স্টপেজে জায়গা পাওয়ার জন্য বড় ভূমিকা রেখেছে এই ডোমেইন নাম।

Keyword:

ডোমেইন নামের পরে যে বিষয়টি অধিক গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে চলে আসে সেটি হল কি-ওয়ার্ড। ভিজিটর যেটি লিখে গুগলে সার্চ দেয় সেটিই মূলত কি-ওয়ার্ড। যেকোন ওয়েবসাইটের জন্য কি-ওয়ার্ড নির্বাচন করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। মূলত ওয়েবসাইটটি যে বিষয়ের ওপর হবে তার ওপর ভিত্তি করেই কিওয়ার্ড নির্বাচন করা উচিত। যেমন আমরা যদি Natural Beauty of Bangladesh লিখে সার্চ দেই তবে সে সংক্রান্ত অনেকগুলো ওয়েবসাইট দেখতে পাব-

Natural Beauty Of Bangladesh

এরকম যে লেখাটি লিখে সার্চ দেওয়া হয় মূলত সেটিই হল কি-ওয়ার্ড।

Original Content:

কি-ওয়ার্ডের পরই যে বিষয়টি রয়েছে সেটি হচ্ছে অরিজিনাল কন্টেন্ট। এসইও করতে গেলে আপনার ওয়েবসাইটের কন্টেন্টগুলো  অবশ্যই অরিজিনাল হতে হবে । কন্টেন্ট যদি ডুপ্লিকেট হয় তবে সেটা দিয়ে Page Rank বৃদ্ধি করা অনেকটা অসম্ভব। তাই অন্য কোন সাইট থেকে হুবহু কপি না করে ক্রিয়েটিভ কন্টেন্ট লিখতে হবে।

Quality Backlink:

কোন ওয়েবসাইটের সাথে অন্যান্য সাইটের যে লিংকিং করা হয় সেটাই মূলত ব্যাকলিংকিং। ব্যাকলিংকিং এর মাধ্যমে সবচেয়ে বেশি ভিসিটর নিয়ে আসা যায়। যত কোয়ালিটি ব্যাকলিংকিং করতে পারবেন আপনার ওয়েবসাইটের জন্য ততই কার্যকরী হবে।

Real Visitor:

ওয়েবসাইটের রিয়াল ভিজিটর  যত  বাড়বে গুগলে  ওয়েবসাইটের Rank তত বৃদ্ধি পাবে। আপনার ওয়েবসাইট দিন দিন জনপ্রিয়তা পাবে। যদি  Black Hat System ফলো করে ভুয়া ভিজিটর নিয়ে আসেন গুগল সেটি বুঝতে পারলে  আপনার ওয়েবসাইটকে কখনো  ফার্স্ট পেজে আনবেনা। তাই ভিজিটরগুলো যেন রিয়াল হয় সেদিকে নজর দিতে হবে।

Website Title:

ওয়েবসাইট  টাইটেল একটি টেকনিক্যাল বিষয়। ওয়েবসাইটের  টাইটেলটা যেন কি-ওয়ার্ড সমৃদ্ধ হয় সেদিকে নজর রাখতে হবে। ওয়েবসাইটের টাইটেলটা সার্চ রেজাল্টে নিয়ে আসার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এর সঠিক প্রয়োগের মাধ্যমে একটি ওয়েবসাইটকে প্রথম পেজে নিয়ে আসাটা অনেকটা সহজ হয়ে যায়।

Print Friendly

ট্যাগ সমূহঃ

বাংলা ভাষায় ওয়েব ডিজাইন, ডেভেলপমেন্ট, ডেক্সটপ অ্যাপ্লিকেশান ডেভেলপমেন্ট শিখতে চান? আমরা রংপুর সোর্স আপনার জন্য হাই কোয়ালিটি এবং প্রোফেসনাল মানের প্রোজেক্ট এবং রিসোর্স ভিত্তিক ভিডিও টিউটোরিয়াল প্রকাশ করছি। আপনি আমাদের থেকে থেকে ভিডিও গুলো পেতে চাইলে অবশ্যই ক্রয় করতে হবে। তবে, ক্রয় করবার পূর্বে ভিডিও দেখে নিতে পারেন এজন্য আমরা আপনাকে দিচ্ছি ৩০ শতাংশ ফ্রী ভিডিও যেকোনো ভিডিও কোর্সের জন্য। ভিডিও কোয়ালিটি এবং প্রেজেন্টেশান দেখে আপনি সন্তুষ্ট হলে, তবেই বাকি টিউটোরিয়াল গুলোর ডিভিডি বা সিডি অর্ডার করুন! জেনে রাখা ভাল, আমাদের একেকটি ভিডিও কোর্স উক্ত ক্ষেত্রে প্রোফেসনালদের দ্বারাই তৈরি করা। তাই আপনি প্রোফেসনাল কাজ শিখবেন সেই দৃষ্টিকোণ থেকে আমাদের ভিডিও টিউটোরিয়াল গুলো ক্রয় করবেন!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *