সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশনে হাতে খড়ি- পর্ব – ৯

Print Friendly

এখন আপনাদের দেখাবো কিভাবে একটি ফ্রি ওয়েবসাইট খুলবেন। এর জন্য www.blogger.com এ গিয়ে আপনার Gmail আকাউন্ট দিয়ে লগইন করবেন। এরপর হোমপেজে প্রবেশ করার পর Create blog লেখার উপর ক্লিক করুন।  এরপর এরকম একটি পেজ চলে আসবে-

New blog

উপরের পেজে যে জায়গাটিতে Titel লেখা আছে সেখানে আপনার ওয়েবসাইটের নামটি লিখবেন। যেমন আপনার সাইটের নাম যদি Helth Tips হয় তবে সেটিই লিখতে হবে। তার নিচেAddress বরাবর ওয়েবসাইটের URL বা ডোমেইন নেমটা দিতে হবে। URL হিসেবে healthtips বসালে www.healthtips.blogspot.com শো করবে। তবে www বা blogspot কথাটা লেখার দরকার নাই। এটা অটোমেটিক বসে যাবে, শুধু মাঝখানে URL টা বসালেই চলবে। এরপর নিচের দিকে Template গুলোর মধ্যে যেকোন একটা সিলেক্ট করে নিতে হবে। এর নিচে মাউসের কারজার রাখলে Apply লেখা দেখা যাবে, আর এর উপর ক্লিক করলেই সিলেক্ট করা হয়ে যাবে। এখন সবার নিচের দিকে যেখানে  Create blog লেখা আছে তার উপর ক্লিক করলেই আপনার ওয়েবসাইট তৈরি হয়ে যাবে। এরপর ওয়েবসাইটকে ধারাবাহিকভাবে সাজিয়ে ধীরে ধীরে সমৃদ্ধ করে তুলতে হবে।

What is meta tag:

এখন  আমরা আলোচনা করব meta tag নিয়ে। meta tag হল আপনার ওয়েবসাইটের বেসিক ধারনা প্রদানকারী ট্যাগ বা কোড নাম্বার। কোন ওয়েবসাইটকে যখন গুগলের কাছে সাবমিট করা হয় তখন ওই সাইটের meta tag দেখেই গুগল কর্তৃপক্ষ ওই সাইট সম্পরকে নরমালি একটা ধারনা পেয়ে যাবে, সাইটের কি-ওয়ার্ড কি, ডিস্ক্রিপশন কি এ বাপারে। তখন গুগল ক্রলার ওই ওয়েবসাইটকে ক্রল করবে। তো চলুন দেখে নেই meta tag এর প্রাকটিক্যালি ব্যবহার।

<meta name=”description” content=”free tutorials”>

<meta name= “keywords”

Content=”HTML, CSS, XML, java script”>

<meta name=”author” content=”stale Refsnes”>

<meta charset=”UTF-8”>

এটা হল meta tag এর জন্য পুর্নাঙ্গ একটি কোড। আপনি যখন ওয়েবসাইটের জন্য meta tag বসাবেন তখন এইভাবে বসাতে হবে। এখানে প্রতিটা লাইনে একটা করে ট্যাগ রয়েছে। তবে তৃতীয় ও চতুর্থ লাইনের ট্যাগটি খুব একটা গুরুত্তপূর্ণ না। দিলেও চলে আবার না দিলেও চলে। প্রথম ও ২য়টি হলেই যথেষ্ট।  উপরের প্রথম লাইনে যে মেটা নেম এর পাশে description লেখা আছে সেখানে ডাবল কোটেশন এর মধ্যে ওয়েবসাইটের বর্ণনা লিখতে হবে এবং সেই বর্ণনাটি ১৫-২০ ওয়ার্ডের মধ্যে হতে হবে। এরপর keywords এর নিচে যেখানে HTML, CSS, XML, java script অংশটুকু আছে সেখানে নির্বাচিত keyword গুলো বসাতে হবে। তবে এই keyword গুলোও ১৫-২০ শব্দের মধ্যে হলে ভাল হয়। কি-ওয়ারড গুলো আগে থেকে সিলেক্ট করে রাখতে হবে। আর meta tag এর ক্ষেত্রে ক্যাপিটাল লেটার ব্যবহার না করাই বেটার। এভাবে সঠিকভাবে ওয়বসাইটে meta tag বসাতে পারলে সেটা ওয়েবসাইটের পেজ রাঙ্ক বৃদ্ধিতে হেল্পফুল হবে।

Print Friendly

ট্যাগ সমূহঃ

বাংলা ভাষায় ওয়েব ডিজাইন, ডেভেলপমেন্ট, ডেক্সটপ অ্যাপ্লিকেশান ডেভেলপমেন্ট শিখতে চান? আমরা রংপুর সোর্স আপনার জন্য হাই কোয়ালিটি এবং প্রোফেসনাল মানের প্রোজেক্ট এবং রিসোর্স ভিত্তিক ভিডিও টিউটোরিয়াল প্রকাশ করছি। আপনি আমাদের থেকে থেকে ভিডিও গুলো পেতে চাইলে অবশ্যই ক্রয় করতে হবে। তবে, ক্রয় করবার পূর্বে ভিডিও দেখে নিতে পারেন এজন্য আমরা আপনাকে দিচ্ছি ৩০ শতাংশ ফ্রী ভিডিও যেকোনো ভিডিও কোর্সের জন্য। ভিডিও কোয়ালিটি এবং প্রেজেন্টেশান দেখে আপনি সন্তুষ্ট হলে, তবেই বাকি টিউটোরিয়াল গুলোর ডিভিডি বা সিডি অর্ডার করুন! জেনে রাখা ভাল, আমাদের একেকটি ভিডিও কোর্স উক্ত ক্ষেত্রে প্রোফেসনালদের দ্বারাই তৈরি করা। তাই আপনি প্রোফেসনাল কাজ শিখবেন সেই দৃষ্টিকোণ থেকে আমাদের ভিডিও টিউটোরিয়াল গুলো ক্রয় করবেন!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *