ফ্রীলান্সিং মার্কেটপ্লেস “ফীভার” টিউটোরিয়াল – দ্বিতীয় পর্ব !

8
1,042 বার দেখা হয়েছে।

ফ্রীলান্সিং মার্কেটপ্লেস ফীভার নিয়ে এটা আমার দ্বিতীয় টিউটরিয়াল। গত পর্বে আলোচনা করেছিলাম কিভাভে ফিভারে সাইন আপ করবেন এবং আপনার প্রোফাইল সাজাবেন। আজকে দেখানো হবে কিভাবে গিগ পোষ্ট করতে হবে ।

গিগ পোস্টিং :

প্রথমে ফীভারে লগইন করে নিচে দেখানো ছবির মত Seller থেকে My Gigs এ ক্লিক করুন ।

Add New Gig এ ক্লিক করুন ।

এবার নিচের ছবির মত গিগ পোষ্টিং পেজ আসবে । এখানে আপনার গিগ লিখতে হবে । নিচের ছবিটি অনুসরন করুন ।

I will এর পরবর্তী অংশে আপনার গিগের টাইটেলটি লিখুন, উদাহরণস্বরূপ আমি লিখলাম I will give you 1000 Twitter Follow for 5$. উল্লেখ্য যে এখানে 5$ ফিক্সড । আপনি এটা কম কিংবা বেশি করতে পারবেন না ।

Description: এখানে আপনার গিগ সম্পর্কে বিস্তারিত লিখুন । এটি সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ কেননা বায়ার আপনার গিগে অর্ডার করবে আপনার গিগ Description দেখে ।

Instruction to Buyer: আপনার গিগ এর অর্ডার ভালোভাবে সম্পূর্ণ করার জন্য বায়ারের কাছ থেকে কি কি তথ্য প্রয়োজন সেটা এখানে লিখুন । উদাহরণস্বরূপঃ আপনার গিগ যদি হয় I will give you 1000 Twitter Follow for 5 তাহলে Instruction to Buyer এর ঘরে লিখতে পারেন Give Me Your Twitter Username. যদি কোন তথ্যের দরকার না হয় তাহলে লিখতে পারেন Order Me To Start Working` । উল্লেখ্য যে এই ঘরটি আপনি কখোনোই ফাকা রাখতে পারবেন না । আপনার গিগে অর্ডার আসার পরে বায়ারকে আপনার Instruction অনুযায়ী তথ্য দিতে হবে নতুবা আপনার অর্ডার ডেলিভারি দিতে পারবেন না এবং নিদৃষ্ট সময় পরে অর্ডার ক্যান্সেল হয়ে যাবে ।

Tags: এখানে গিগ রিলেটেড কিছু শব্দ লিখুন । যত ইচ্ছা ট্যাগ ব্যাবহার করতে পারেন কিন্তু তা যেন গিগ রিলেটেড হয় । একাধিক ট্যাগ কমা দিয়ে আলাদা করে রাখতে হবে ।

Maximum Days To Complete: আপনি আপনার অর্ডারটি কত সময়ের মাঝে শেষ করতে পারবেন তা লিখুন ।

Add Image: এখানে গিগ রিলেটেড একটি ছবি আপলোড করুন (অবশ্যই JPEG ফরম্যটের) । Add More Image অপশনটি ব্যাবহার করে চাইলে একাধিক ছবি আপলোড করতে পারেন ।

Gig Extras: এই সুবিধাটি সবার জন্য নয় , এটি ব্যাবহার করতে হলে আপনাকে অন্তত First Level Seller হতে হবে ( Seller Level নিয়ে পরবর্তীতে আলোচনা করা হবে)। এটি ব্যাবহার করে আপনি আপনার গিগের সাথে এক্সট্রা গিগ জুড়ে দিতে পারেন  . এক্সট্রা গিগের দাম 5$ , 10$ , 20$ যেকোনো একট দিতে পারেন । এক্সট্রা গিগ এড করলে যদি কেউ আপনার গিগে ক্লিক করে তাহলে মুল গিগের সাথে এক্সট্রা গিগটিও দেখতে পাবে এবং একসাথে দুটোই অর্ডার করতে পারবে ।

সব কিছু ঠিকভাবে হয়ে থাকলে সেভ এ ক্লিক করুন । নিচের মত পেজ দেখতে পাবেন । এখানে আপনাকে ভিডিও আপলোড করলে বলা হবে । আপনি চাইলে এটি Skip  করে দিতে পারেন ।

ব্যস হয়ে গেল গিগ পোষ্টিং । প্রতিদিন যত ইচ্ছা গিগ পোষ্ট করতে পারবেন । তবে বেশি বেশি গিগ দিলে যে বেশি অর্ডার পাবেন তা হয় আপনাকে লক্ষ্য রাখতে হবে কোন ধরনের গিগের চাহিদা বেশি তার দিকে । কিভাবে বেশি অর্ডার পাবেন তা নিয়ে পরবর্তী পর্বে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে । সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ ।

Print Friendly, PDF & Email
Previous articleসফটওয়্যার ছাড়াই ডাউনলোড করুন ইউটিউব ভিডিও!
Next articleআপনি কি কোন ফেসবুক পেজ এডমিন?
এই কোলাহল একদম ভাল লাগেনা তাই সময় পেলেই বন্ধুদের নিয়ে ছুটে যাই দুরে কোথাও নির্জনে যেখানে ব্যস্ততা নেই, নেই লোক দেখানো সুখি থাকার অভিনয়, যা আছে সবই প্রাকৃতিক ভাবে সৃষ্ট।দারুন ভবঘুরে ছিলাম আমি।একবার ঘুরতে বের হলে সময় জ্ঞান থাকতো না ।এই ব্যাস্ত জীবনে সেভাবে ঘোরা হয় না , যেভাবে ঘোরা আমার স্বভাব । দিন যায় রাত আসে আপন নিয়মে শুধু আসেনা সেই ভবঘুরে দিন গুলো। ব্যস্ত শহরের প্রতিটি ধুলিকনাও সমান ব্যস্ততার মাঝেই দিন কাটায়, এ বাড়ীর পাচিলে নয়তো কোন আট্রালিকার গ্রীলে ফাঁকে বসে থাকে অন্য কোথাও উড়ে যাবার জন্য। শান্ত নদীর বুকে উড়ে বেড়ানো চিল গুলো সর্বদা শান্তই থাকে, ঝাক বেঁধে উড়ে বেড়ায় আত্মতৃপ্তি নিয়ে নীড়ে ফেরে। ওদের সবারই কিছু কিছু চাওয়া থাকে, থাকে প্রাপ্তির সম্মিলনও,কিন্তু কিছু কিছু মানুষের জীবন ? কিঞ্চিৎ স্বপ্ন দেখতেও তাদের ভয়, পাছে স্বপ্ন ভঙ্গের বেদনা তারা করে সব সময়।দিনের শেষে ফিরে যাবার মত একটা নীড়ও তাদের নেই, আমি সেই দলেরই একজন.............. আমিতো সামান্য একজন মানুষ, শহরের ধুলিকণা কিংবা শঙ্খচিল হতে পারিনা। কাউকে স্বপ্ন দেখাতে জানিনা, জানিনা কিভাবে স্বপ্ন দেখতে হয়। জানিনা কিভাবে ভালবাসতে হয়। আমার আনুভুতিগুলো ভোতা হয়ে গেছে। তাইতো সারাদিন যন্ত্র নিয়ে পড়ে থাকি, যন্ত্র হওয়ার সাধানায় মত্ত আমি। যন্ত্র দিয়েই একেঁ চলি জীবনের প্রতিচ্ছবি, প্রতিটি জীবনেই আলাদা একটা প্যাটার্ণ থাকে, নানা রংয়ের সমাহারে ভেক্টর আকাঁ থাকে মনের গহীনে, পাজরের মাঝে সুপ্ত করে লুকানো থাকে এক ছবি হাজারো pixel দিযে গঠিত সে ছবি। সময়ের স্রোতেই হোক কিংবা বাস্তবতার কষাঘাতেই হোক ধিরে ধীরে সব কিছুই Bluer হয়ে যাচ্ছে হৃদয়ের মনিটরে। এত কিছুর পরেও একেঁ চলি জীবনের জল ছবি; স্বপ্নের কালো রংয়ে............

8 COMMENTS

  1. ভাইয়া,গিগ জিনিসটা কি? আমি একাউন্ট খুলেছি, কিন্তু গিগ সম্পর্কে ধারনা না থাকায় আটকে গেছি,প্লিজ একটু বলেন গিগ কি?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.